বন্ধ হচ্ছে ৫ অপারেটরের ২০ লাখ ৪৯ হাজার সিম

0
204

আজ রাতে পাঁচটি অপারেটরের ২০ লাখ ৪৯ হাজার সিম বন্ধ করে দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার পর নিষ্ক্রিয় করা হবে এই সিমগুলো।

আর এই সিমগুলো হচ্ছে জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে একজন গ্রাহকের নামে নিবন্ধন করা ১৫টির বেশির তালিকায় থাকা সিম। তবে করপোরেট গ্রাহকের ক্ষেত্রে সেটা প্রযোজ্য হবে না।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) জানিয়েছে, একজনের জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে অসংখ্য সিম কেনার ফলে অপরাধ প্রবণতা তৈরি হচ্ছে। সেটা থেকে রক্ষা পেতে অতিরিক্ত সিম বন্ধ করা হচ্ছে।

বিটিআরসি আরও জানিয়েছে, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের পর সকল গ্রাহকের তথ্য বিটিআরসি’র কাছে রয়েছে। কেন্দ্রীয় তথ্য ভাণ্ডারের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, একজনের এনআইডি দিয়ে কতটি সিম চালু করা হয়েছে।

বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. জাকির হোসেন খান বলেন, ২৬ এপ্রিল মধ্যরাত থেকে এক এনআইডির ১৫টির বেশি সিম নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে।

বিটিআরসি জানায়, অতিরিক্ত সিমের মধ্যে গ্রামীণফোনের চার লাখ ৬১ হাজার, বাংলালিংকের চার লাখ ৫৫ হাজার, রবি’র চার লাখ ১৯ হাজার এবং টেলিটকের চার লাখ ৮৭ হাজার সিম বন্ধ করা হবে।

বিটিআরসি সর্বশেষ ব্যক্তি পর্যায়ে সিমের সর্বোচ্চ সংখ্যা নির্ধারণ করে দিয়ে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একজন গ্রাহকের প্রি-পেইড, পোস্ট পেইড মোবাইল অপারেটর নির্বিশেষে সিম/রিমের সর্বমোট সংখ্যা ১৫ নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন থেকে এই সীমার বাইরে কোনো গ্রাহক সিম নিবন্ধন করতে পারবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here