বৈশাখের গরমে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় করণীয়

0
128

পহেলা বৈশাখে ঘুরতে বের হবেন এটাই স্বাভাবিক। পোশাক সাজসজ্জা সব আয়োজন শেষ। খুব ভোরে রমনার বটমূলে অথবা নিজের পছন্দ মতো জায়গায় বেড়াতে যাবেন। কিন্তু, সব কিছুর পরেও আজকের গরমের কথা মাথায় রেখেছেন তো?

এই গরমে বেড়াতে বের হওয়ার আগে নিজের কিছু পস্তুতি অবশ্যই থাকা দরকার। তাহলে আসুন আজ জেনে নেই বৈশাখের গরমে আপনার কি কি প্রস্তুতি থাকা দরকার।

পানির বোতল সাথে রাখুন: সব সময় নিজের সাথে অবশ্যই পানির বোতল রাখবেন। গরমের দিনে শরীরে পানি শূন্যতার অভাব বেশি পরিলক্ষিত হয়। শরীর থেকে অতিরিক্ত পানি নির্গত হয়। এজন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করতে হয়। শরীরের পানির অভাব দূর করার জন্য বিভিন্ন পানীয় জাতীয় খাবার গ্রহণ করতে হয়।

পানীয় জাতীয় খাবার খান: নিয়মিত মাসের তুলনায় গ্রীষ্মের সময় শরীরের অতিরিক্ত তরল জাতীয় খাবার প্রয়োজন হয়। কারণ, এ সময় স্বাভাবিকের তুলনায় পানি খরচ বেশি হয়। তাই, শুধু পানি খেলেই হবে না, পানি জাতীয় খাবার খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে।

ছায়াতে থাকার চেষ্টা করুন: আপনার যদি প্রখর রোদে বাহিরে যাওয়ার প্রয়োজন হয়, তাহলে অবশ্যই মাথা ঢেকে রাখার ব্যবস্থা করুন। কোনো টুপি ব্যবহার করুন বা ছাতা ব্যবহার করুন। প্রখর রোদের কারণে মাথা গরম হওয়া স্বাভাবিক। এ সময় সুরক্ষা প্রদানের জন্য অবশ্যই কিছু ব্যবহার করুন।

আপনার ত্বক রক্ষা করুন: গ্রীষ্মে আপনার ত্বকের সুরক্ষা প্রদান করা অনেক জরুরি। সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মি আমাদের ত্বকের জন্য অনেক ক্ষতিকর। তাই, বাহিরে যাওয়ার আগে সবসময় সূর্য পর্দা (সানস্ক্রিন) লোশন অবশ্যই ত্বকে প্রয়োগ করুন। এর ফলে সূর্যের ক্ষতিকর অতি বেগুনী রশ্মি থেকে সুরক্ষা পাওয়া যায়। আপনি যদি ১০ মিনিটের জন্যও সূর্যের আলোয় বাহিরে যান, তবুও সানস্ক্রিন লোশন অবশ্যই ত্বকে প্রয়োগ করুন।

ফল খাওয়ার অভ্যাস করুন: আম, কাঁঠাল ও লিচু ইত্যাদি মৌসুমি ফল আপনার খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন। এর ফলে আপনার শরীরের প্রয়োজনীয় অপরিহার্য ভিটামিন পাওয়া যাবে। আপনার ইমিউন সিস্টেমকে বৃদ্ধি করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এছাড়া ফল শরীরের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে কার্যকরি ভূমিকা পালন করে। ভিটামিন ও খনিজের প্রধান উৎস হলো ফলমূল। তাই বাড়িতে বা বাহিরে যেখানেই থাকুন না কেনো যে ফল পাবে সেটাই খাওয়ার চেষ্টা করুন।

কিছু টিপস:

. চেষ্টা করুন খুব সকালে অথবা বিকেলে যখন রোদ কম থাকবে তখন বাড়ি থেকে বের হতে।

. সারা দিন ঘুরাঘুরি করতে চাইলে সেইভাবে প্রস্তুতি নিয়ে বের হোন।

. অবশ্যই সাথে ছাতা, সানগ্লাস, পানির বোতল, রুমাল, টিস্যু এসব রাখার চেষ্টা করুন।

. সাথে খাওয়ার স্যালাইন রাখতে পারেন। তবে পথে ডাব পেলে সেটা স্যালাইনের থেকে ভালো কাজ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here